১৮ বছরের ঊর্ধ্বে প্রাপ্তবয়স্ক সব নাগরিককে টিকার আওতায় আনা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

১৮ বছরের ঊর্ধ্বে প্রাপ্তবয়স্ক সব নাগরিককে টিকার আওতায় আনা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে প্রাপ্তবয়স্ক সব নাগরিককে টিকার আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) রাজধানীর মহাখালীর বিসিপিএস মিলনায়তন থেকে জুম কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কোভিড আইসিইউ ও বহির্বিভাগ (ওপিডি) শেড উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

টিকার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ভ্যাকসিন গ্রহণের বয়সসীমা কমিয়ে আনার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। আমরা ছেলে-মেয়েদের তাড়াতাড়ি স্কুল-কলেজে পাঠাতে চাই। শিক্ষকদের আমরা ভ্যাকসিন দিয়েছি এবং ১৮ বছর ও এর বেশি বয়সী ছেলে-মেয়েদের আমরা ভ্যাকসিনের আওতায় নিয়ে আসবো। তাদের স্কুল-কলেজে যাওয়ার সুযোগ করে দেবো। তাদের জীবনের একটা বছর নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এটা একটা দেশের জন্য বিরাট ক্ষতি।’

তিনি বলেন, ‘আজ থেকে লকডাউন শিথিল করা হয়েছে। তার মাধ্যমে সংক্রমণের হার বাড়তে পারে। শিথিল করা হলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে আশা করি সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণে থাকবে।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ঈদের যে আনন্দ, সে আনন্দ মানুষ করতে পারবে না। আমরা এমনভাবে যাতে ঘোরাফেরা না করি, ঈদের আনন্দ যেন দুঃখে পরিণত না হয়ে যায়। ট্র্যাজেডিতে পরিণত না হয়ে যায়। সংক্রমিত হয়ে মানুষ মারা গেলে ঈদ আর ঈদ থাকবে না, তখন আমাদের মাতম করতে হবে।’

Share This Post