সুনামগঞ্জে কিশোরী ও গৃহবধূ ধর্ষন,গ্রেফতার-২

সুনামগঞ্জে কিশোরী ও গৃহবধূ ধর্ষন,গ্রেফতার-২

ইকবাল হোসেন রিংকু (সুনামগঞ্জ সদর)

সুনামগঞ্জে এক কিশোরী ও এক গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছে।পৃথক দুটি ধর্ষণের ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলো, জেলার তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের নামশ্রম গ্রামের মৃত রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে মঞ্জুরুল হক (৪৮) ও ছাতক উপজেলার চরেরবন্দ গ্রামের মৃত রাখাল মিয়ার ছেলে জাবেদ আহমদ (২৫)।আজ ১০ আগস্ট রোজ মঙ্গলবার দুপুর ১২ টায় আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।এদিকে পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,গতকাল ৯ আগস্ট রোজ সোমবার রাত ১১টায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক মঞ্জুরুল হককে নিজ গ্রাম জেলার তাহিরপুর উপজেলার লামাশ্রম থেকে গ্রেফতার করে।এর আগে গত ৮ আগস্ট রোজ রোববার ভোরে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে লামশ্রম গ্রামের এক গৃহবধূ বাড়ির বাহিরে যাওয়ার পর মঞ্জুরুল হক তার মুখ চেপে ধরে তুলে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।পরে এ ঘটনাটি থানায় জানালে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ধর্ষিতা গৃহবধূকে উদ্ধার করে।ঘটনার প্রেক্ষিতে ধর্ষিতা গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।অপরদিকে ছাতক পৌর শহরের মন্ডলীভোগ এলাকায় ১৯ বছরের এক কিশোরীকে প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে বিয়ে করার আশ্রস দিয়ে ধর্ষণ করে পার্শ্ববর্তী চরেরবন্দ এলাকার প্রেমিক জাবেদ আহমদ।এই ঘটনার প্রেক্ষিতে পুলিশ প্রেমিক জাবেদকে তার নিজ এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। এ ব্যাপারে ধর্ষিতা কিশোরী বাদী হয়ে তার প্রেমিকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা নং-৭ দায়ের করেছন।এদিকে তাহিরপুর থানার (ওসি) আব্দুল লতিফ তরফদার ও ছাতক থানার (ওসি) শেখ নাজিম উদ্দিন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Share This Post