সালথায় প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত সময় পার করছে মৃৎশিল্পীরা

সালথায় প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত সময় পার করছে মৃৎশিল্পীরা


জাকির হোসেন (সালথা, ফরিদপুর) : 

আগামী ১১ অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাচ্ছে সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজা। ফরিদপুরের সালথায় প্রস্তুত করা হচ্ছে প্রতিমা। নিখুঁতভাবে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন মৃৎশিল্পীরা। এখন চলছে মাটির কাজ। উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির তথ্য মতে সালথায় ৪৭টি পূজা মণ্ডপে পূজা উদযাপিত হবে।
পুরাণ অনুযায়ী দুর্গা শব্দের অর্থ অপ্রতিরোধ্য অর্থাৎ তাকে কেউ পরাজিত করতে পারে না। এবারে এই মহামায়া দশভূজা দেবী দুর্গার আগমন ঘোটকে, গমন দোলায় চড়ে‌।
উপজেলায় সরেজমিন ঘুরে প্রতিমা শিল্পীদের ব্যস্ততার চিত্র দেখা গেছে। প্রতিমা শিল্পীদের অতি ভালোবাসায় ও নিপুণ আঁচড়ে তৈরি হচ্ছে একেকটি প্রতিমা।
একটি দুর্গা প্রতিমা তৈরি করতে কমপক্ষে ১৫ দিন লাগে। তবে একবারে একটি প্রতিমা তৈরি করা যায় না। কাঁদামাটি শুকালে রঙের কাজ করতে হয়। সারা বছর এই সময়টির জন্য অপেক্ষায় থাকি। বছরের অন্য সময় তেমন কোন কাজ হয় না। এই সময় এলে ব্যস্ততা বেড়ে যায়।
বাংলাদেশ পূজা উদযাপন কমিটি সালথা উপজেলা শাখার সভাপতি অরুপ কুমার সাহা বলেন, প্রতি বছরের মতো এবারও এ উৎসবটি জাঁকজমকভাবে উদযাপন করা হবে। তবে করোনা সংক্রমণ নিয়ে তারা শঙ্কিত। সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলে উৎসবের পরিধি ছোট করতে হবে।
বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ সালথা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অনন্ত কুমার বিশ্বাস বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে গতবারের মতো এবারেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা উদযাপনের নির্দেশনা রয়েছে। আমাদের কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন পরিষদের দেওয়া নির্দেশনা মেনেই পূজা উদযাপন করা হবে।
সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আশিকুজ্জামান  বলেন, দেবী বিসর্জন পর্যন্ত স্বেচ্ছাসেবী দলসহ সার্বক্ষণিক প্রশাসনিক নজরদারি থাকবে। প্রতিটি পূজামণ্ডপের জন্য টহল পুলিশ এবং পূজামণ্ডপগুলোর জন্য মোবাইল টিম থাকবে।

Share This Post