সংশোধনের শর্তে ৭০ অভিযুক্ত শিশুকে মুক্তি দিলেন আদালত

সংশোধনের শর্তে ৭০ অভিযুক্ত শিশুকে মুক্তি দিলেন আদালত


শামসুল কাদির মিছবাহ (সুনামগন্জ):
অভিযুক্ত ৭০ জন শিশুকে কারাগারে না পাঠিয়ে ফুলের তোড়া দিয়ে সংশোধনের জন্য মা-বাবার জিম্মায় দিয়েছেন সুনামগঞ্জের শিশু আদালতের বিচারক। লঘু অপরাধে ৫০টি মামলায় ৭০ জন শিশুকে সংশোধনের সুযোগ দিয়ে মা-বাবার জিম্মায় দেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।১৩ অক্টোবর বুধবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জাকির হোসেন এই রায় দেন। প্রতিদিন দু’টি ভালো কাজ করা ও তা ডায়েরিতে লিখে রাখা এবং বছর শেষে ডায়েরি আদালতে জমা দেয়া, মা-বাবাসহ গুরুজনদের আদেশ-নিষেধ মেনে চলা, মা-বাবার সেবা যত্ন করা ও তাদের কাজে সাহায্য করা, নিয়মিত ধর্মগ্রন্থ পাঠ ও ধর্মীয় অনুশাসন পালন, অসৎ সঙ্গ ত্যাগ করা, মাদক থেকে দূরে থাকা, ভবিষ্যতে কোনো অপরাধের সাথে নিজেকে না জড়ানোর শর্তে এসব মামলা নিষ্পত্তি করা হয়।আদালতের এমন ইতিবাচক রায়কে সাধুবাদ জানিয়েছেন সুধিসমাজসহ সর্বস্তরের জনতা।  তাঁরা জানান, লঘু অপরাধে ৫০টি মামলায় ৭০ জন শিশুকে সংশোধনের সুযোগ দিয়ে মামলার নিষ্পত্তি করে এক বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন বিচারক।আদালত তার আদেশে বলেছেন, এসব শর্ত পালন হচ্ছে কি না- তা আগামী এক বছর একজন প্রবেশন কর্মকর্তা পর্যবেক্ষণ করবেন এবং প্রতি তিন মাস অন্তর আদালতকে অবহিত করবেন।আদালতের এমন রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ৭০ শিশু ও অভিভাবকসহ আইনজীবীরা।এ ব্যাপারে শিশু আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর হাসান মাহবুব সাদী জানান, আদালতের এমন উদ্যোগে পরিবারের সান্নিধ্যে কোমলমতি শিশুরা স্বাভাবিকভাবে বেড়ে ওঠবে ও সুন্দর জীবন গঠন করতে পারবে। বিচারকের এ রায় শুধু সুনামগন্জ নয় সারা বিশ্বে যুগান্তকারী রায় হিসেবে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

Share This Post