“শিক্ষক সম্মাননা ২০২১: সঙ্কটে নেতৃত্ব”- রংপুর বিভাগ

“শিক্ষক সম্মাননা ২০২১: সঙ্কটে নেতৃত্ব”- রংপুর বিভাগ

গ্রামীণফোন ও এটুআই’এর উদ্যোগে শিক্ষকদের স্বীকৃতি প্রদান
এটুআই ও গ্রামীণফোন এর যৌথ উদ্যোগে গত শুক্রবার রংপুর বিভাগের সক্রিয় জেলা  ICT4E  অ্যাম্বাসেডর শিক্ষকদের নিয়ে আয়োজন করা হয়েছে “শিক্ষক সম্মাননা ২০২১: সঙ্কটে নেতৃত্ব” সম্মাননা অনুষ্ঠান। করোনাকালে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী অনলাইনে দেশের শিক্ষকদের মাঝে একাগ্র প্রচেষ্টায় শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত ছিল।বাংলাদেশের একমাত্র শিক্ষকদের জন্য তৈরি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম এটুআই এর ‘শিক্ষক বাতায়ন’ শিক্ষকদের অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমসহ শিক্ষকদের প্রযুক্তির ব্যবহার ও ইন্টারনেট সেবা নিশ্চিত করতে নানাবিধ উদ্যোগ নিয়ে এটুআই ও গ্রামীণফোন যৌথভাবে কাজ করছে। ইতিমধ্যে শহর ও গ্রামাঞ্চলের শিক্ষকদের পাঠদান পদ্ধতিতে প্রযুক্তির ব্যবহারের ব্যবধান কমে এসেছে। করোনাকালীন সময়ে শিক্ষকগণ বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে এমনকি প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে অনলাইন স্কুল চালু করে শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। করোনাকালীন সময়ে শিক্ষকদের এই নেতৃত্বের জন্য দেশব্যাপী সক্রিয় জেলা ওঈঞ৪ঊ অ্যাম্বাসেডর শিক্ষকদের সম্মাননা জানানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় ১লা অক্টোবর ২০২১ শীতল কমিউনিটি সেন্টার, রংপুরে বিভাগীয় সক্রিয় প্রায় ২০০ জন জেলা ওঈঞ৪ঊ অ্যাম্বাসেডর শিক্ষকদের নিয়ে “শিক্ষক সম্মাননা ২০২১: সঙ্কটে নেতৃত্ব”- রংপুর বিভাগ  আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর ড. মুহাম্মদ হাসিবুর রশিদ, মাননীয় উপাচার্য, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, বিভাগীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, রংপুর বিভাগের মাধ্যমিক ও প্রাথমিক শিক্ষার উপ-পরিচালক মহোদয়গনসহ গ্রামীণফোন ও এটুআই’র উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ।         অনুষ্ঠানে গ্রামীণফোনের চীফ বিজনেস অফিসার কাজী মাহবুব হাসান বলেন,  “করোনাকালে স্কুল-কলেজ সমূহ দীর্ঘকাল ধরে বন্ধ থাকার কারণে শিক্ষার্থীদের মাঝে যে শঙ্কা ও মানসিক চাপ তৈরি হয়েছে, তা কমাতে এবং তাদের ঘরবন্দী সময়টাকে কাজে লাগাতে আমাদের শিক্ষকরা অনলাইন ও অফলাইনে গত প্রায় দুই বছর ধরে যে ভূমিকা পালন করে চলেছেন, তা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবি রাখে। এটুআই শিক্ষক বাতায়ন এই কঠিন সময়ে খুবই গুরুত্বর্পূন ভূমিকা পালন করছে এবং এই উদ্যোগে গ্রামীণফোন পার্টনার হতে পেরে খুবই সন্মানিত বোধ করছে। সম্মানিত শিক্ষকদের এই অক্লান্ত প্রচেষ্টাকে সম্মাননা জানানোর লক্ষ্যে ‘শিক্ষক সম্মাননা ২০২১: সঙ্কটে নেতৃত্ব’ প্রোগ্রামটির আয়োজন”     
জনাব খুরশীদুজ্জামান আহমেদ , প্রধান শিক্ষক, কালীগঞ্জ করিম উদ্দিন পাবলিক পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়,  লালমনিরহাট,  বলেন, “আমাদের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা শুধুমাত্র নিয়মিত ক্লাসে না আসতে পারার কারণে তাদের পড়াশোনা বা ক্যারিয়ারের দৌড়ে পিছিয়ে যাবে, এটি মেনে নেওয়া কঠিন ছিল। তাই যেটুকু সুযোগ হাতে ছিল, তাকে কাজে লাগিয়ে চেষ্টা করেছি সরকারের নির্দেশনা ও পাঠ্যসূচি অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার। গ্রামীণফোন ও এটুআই’য়ের কাছ থেকে সম্মাননা পেয়ে আমি অত্যন্ত গর্বিত।” এখন পর্যন্ত এটুআই এর শিক্ষক বাতায়নে প্রায় ৬ লাখ শিক্ষক নিবন্ধন করেছেন, যাদের মধ্যে প্রায় ২৫০০ জন শিক্ষককে তাদের অসাধারণ উপস্থাপনা, উদ্ভাবনী কার্যক্রম ও শিক্ষা বিষয়ক ডিজিটাল কনটেন্ট ডেভেলপমেন্ট এর জন্য  ICT4E  অ্যাম্বাসেডর” -এর মর্যাদা প্রদান করা হয়েছে। করোনা মহামারির কারণে যে দেড় বছরেরও বেশি সময় ধরে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ ছিল, সে সময়ে এই শিক্ষকগণ অনলাইনে শিক্ষার্থীদের শেখার প্রক্রিয়ার সাথে সম্পৃক্ত থাকার সুযোগ করে দেন।  

টেলিনর গ্রুপের অঙ্গসংগঠন গ্রামীণফোন ৮০ মিলিয়ন এরও অধিক গ্রাহক নিয়ে বাংলাদেশের অগ্রণী টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান। ১৯৯৭ সালে যাত্রা শুরু করার পর দেশব্যাপী সর্ববৃহৎ নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে গ্রামীণফোন যার মাধ্যমে দেশের ৯৫ শতাংশ মানুষ সেবা গ্রহণ করতে পারে। ব্র্যান্ড প্রতিজ্ঞা ‘‘চলো বহুদূর’’ এর আওতায় গ্রামীণফোন, গ্রাহকদের জন্য সর্বোত্তম মোবাইল ডাটা, ভয়েস সেবা এবং সবার জন্য ইন্টারনেট প্রদানে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। গ্রামীণফোন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত। 

Share This Post