রূপসায় পূর্ব শক্রতার জেরে কুপিয়ে জখম করেছে এক ব্যক্তিকে,মামলা দায়ের

রূপসায় পূর্ব শক্রতার জেরে কুপিয়ে জখম করেছে এক ব্যক্তিকে,মামলা দায়ের

মোশারফ হোসেন (রূপসা ) :
খুলনার রূপসা উপজেলায় যুগীহাটি গ্রামের মুস্তাকিম শেখকে পূর্ব শক্রতার জের ধরে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালিয়ে গুরুত্ব জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় মুস্তাকিম বাদী হয়ে এজাহার নামীয় ৭ জনও অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জনকে আসামী করে রূপসা থানায় মামলা দায়ের করেছে। যার নং-১১/তাং-২৫/৭/২১ইং। প্রধান আসামী সাগরকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ।
এজাহার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার আইচগাতি ইউনিয়নের যুগীহাটির বাসিন্দা মোঃ জামাল শেখের ছেলে মোঃ মুস্তাকিম শেখ এর সাথে আসামী সাগরের সাথে পূর্ব শক্রতা চলে আসছিল। তারই জের ধরে গত ২৩ জুলাই রাত ১০ টার সময় একই এলাকায় তার বন্ধু অসুস্থ সুমনকে দেখে ফেরার পথে প্রধান আসামী সাগর সরদারসহ বিভিন্ন মামলার আসামীরা দা, ছুরি, লাঠি ও লোহার রড় দেশীয় অস্ত্র- সস্ত্র নিয়ে তার পথ গতিরোধ করে মেরে ফেলার হুমকি দেয় এবং অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। মুস্তাকিম তার প্রতিবাদ করিলে তাকে হত্যার উদ্দ্যেশে মাথায় কোপ মারিলে সেই কোপ ঠেকাতে গেলে তার হাতে লেগে গুরুত্ব জখম হয়। পরে অন্য আসামীরা লাঠি দিয়ে পিটিয়ে তাকে আহত করে। মারপিটের সময় মুস্তাকিম এর চিৎকারে আশপাশের লোক মোস্তফা সরদার রাতুলসহ অনেকেই উপস্থিত হলে আসামীরা চলে যায় এবং ভুক্তভোগী মুস্তাকিমকে চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে আসামীরা তার বাড়িতে গিয়ে ঘরের দরজা, টিনের বেড়া ও চালা ভাংচুর করে। যার ক্ষতির পরিমান ২০ হাজার টাকা বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়। এজাহার ভুক্ত আসামীরা হলেন, একই গ্রামের ইব্রাহীমের ছেলে সোলাইমান, আবু বকর এর ছেলে জিহাদ ,রাজ্জাক ওরফে জিদ্দার ছেলে মনিরুজ্জামান মনির, খোকন মোড়লের ছেলে সোহান, কবির শেখের ছেলে অভি, আল আমীন সহ আরও অনেকেই। এদিকে আসামীদের হাত থেকে মুস্তাকিমকে রক্ষা করার দায়ে মোস্তফা সরদার রাতুলকে আসামী করে ঘটনার ৩ দিন পর মামলা দায়ের করেন ২নং আসামী সোলাইমান শেখ। রূপসা থানার অফিসার ইনচার্জ সরদার মোশাররফ হোসেন জানান, মামলা দাখিলের পর আসামী সাগরকে গ্রেফতার করে জেল হজতে প্রেরন করা হয়েছে ।

Share This Post