রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা দুই সপ্তাহ সময় দিয়েছে তদন্ত কমিটি

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা  দুই সপ্তাহ সময় দিয়েছে তদন্ত কমিটি



শফিক মোহাম্মদ রুমন (সিরাজগঞ্জ): সিরাজগঞ্জের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে দুই সপ্তাহ সময় দিয়েছে তদন্ত কমিটি । আগামী ২১ অক্টোবর দুপুর ১টায় উপস্থিত হয়ে তার বক্তব্য উপস্থাপনের জন্য বলা হয়েছে।বুধবার (১৩ অক্টোবর) দুপুর ২টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান ও পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটির প্রধান লায়লা ফেরদৌস হিমেল।তিনি জানান, অভিযুক্ত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে দুই দফায় গত ৩ ও ৭ অক্টোবর তদন্ত কমিটির কাছে এসে তার বক্তব্য উপস্থাপন করতে বলা হয়। কিন্তু তিনি মানসিক ও শারীরিক অসুস্থতার কথা জানিয়ে উপস্থিত না হয়ে ই-মেইলে আরও ১৪ দিনের সময় প্রয়োজন বলে জানান। এই ই-মেইলটি বার বার পাঠিয়ে আরও কিছুদিন সময়ের জন্য আবেদন জানান। প্রথমে তাকে আর বাড়তি সময় দেওয়া হবে না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু বার বার ই-মেইলে সময়ের আবেদন করার পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত কমিটি তাকে তার চাহিদা অনুযায়ী দুই সপ্তাহের সময় দিয়েছে। ৭ অক্টোবর থেকে হিসােব করে দুই সপ্তাহ পরে আগামী ২১ অক্টোবর দুপুর ১টায় তদন্ত কমিটির কাছে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করতে বলা হয়েছে তাকে।তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার ব্যাপারে তিনি জানান, নানান বিষয়ে যাচাই-বাছাই করে এ ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে।কবে নাগাদ তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়া হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, যেহেতু অভিযুক্ত শিক্ষিকা উপস্থিত না হয়ে সময়ের জন্য আবেদন করেছেন এবং নতুন করে সময় দেওয়া হয়েছে সেক্ষেত্রে উনার বক্তব্য শোনার পরই সবকিছু মিলিয়ে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে। তবে কোনো কারণে ওই শিক্ষিকা যদি শেষ পর্যন্ত উপস্থিত না হন সেক্ষেত্রে তদন্ত কমিটি পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে।এ বিষয়ে কথা বলতে অভিযুক্ত শিক্ষিকা রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী প্রক্টর ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Share This Post