ময়মনসিংহকে ডিজিটাল যুগের উপযোগী করতে হবে :মোস্তাফা জব্বার

ময়মনসিংহকে ডিজিটাল যুগের উপযোগী করতে হবে :মোস্তাফা জব্বার

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, পলল বিধৌত উর্বর মাটি, বিপুল প্রাকৃতিক সম্পদ, ঐতিহ্যগত সংস্কৃতি  এবং হাওরের বিস্তৃর্ণ জলরাশি পরিকল্পিত উপায়ে কাজে লাগানোর মাধ্যমে বৃহত্তর ময়মনসিংহকে জাতীয় অগ্রগতিতে গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব। তিনি বলেন, ময়মনসিংহ বৃটিশ ভারতের বৃহত্তর জেলা থাকলেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  পদক্ষেপ নেবার আগে এই অঞ্চলের অগ্রগতিতে তেমন গুরুত্ব  দেয়া হয়নি।
মন্ত্রী গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে বৃহত্তর ময়মনসিংহের বিশিষ্ট নাগরিক, ময়মনসিংহ বিভাগ গঠন আন্দোলনের নেতা এডভোকেট আনিসুর রহমান খানের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকাস্থ ময়মনসিংহ বিভাগীয় সমিতি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। ঢাকাস্থ ময়মনসিংহ বিভাগীয় সমিতির সভাপতি ম. হামিদ-এর সভাপতিত্বে  অনুষ্ঠানে সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু,সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ, তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা: মো: মুরাদ হাসান, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সাবেক মূখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চেয়ারম্যান সাজ্জাদুল হাসান,ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার মোঃ শফিকুর রেজা বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, ময়মনসিংহ রেঞ্জ এর অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ শাহ আবিদ হোসেন এবং মরহুম নজরুল ইসলাম খান-এর স্ত্রী রোকেয়া বেগম ফেরদৌস প্রমূখ বক্তৃতা করেন। ময়মনসিংহ সমিতির সাধারণ সম্পাদক, ডেপুটি এটর্নি জেনারেল আশরাফুল আলম জজ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। প্রস্তাবিত ময়মনসিংহ বিভাগীয় শহরটিকে একটি স্মার্ট শহর হিসেবে প্রতিষ্ঠার  মাধ্যমে এডভোকেট মো: আনিসুর রহমান খানের প্রতি সম্মান জানানোর চেয়ে ভাল কাজ আর হতে পারে না বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন। তিনি বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলকে ঐতিহাসিকভাবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মানুষদের  ঘাঁটি হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশনারি নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলেছে। তারই হাত ধরে অতীতের পশ্চাদপদতা অতিক্রম করে পাল্টে যাচ্ছে দেশের সকল অঞ্চলের সকল মানুষের জীবনযাত্রা। কম্পিউটার প্রযুক্তি বিকাশের অগ্রদূত জনাব মোস্তাফা জব্বার ময়মনসিংহ বিভাগ প্রতিষ্ঠা, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠা,নেত্রকোণায় শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় ও  মেডিক্যাল কলেজ, ময়মনসিংহ,জামালপুর ও শেরপুরে মেডিকেল কলেজ, কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাইটেক পার্ক ও অর্থনৈতিক অঞ্চল, বিসিক শিল্পনগরী স্থাপন এবং সড়ক, রেল ও ডিজিটাল সংযোগসহ এই অঞ্চলের উন্নয়নে গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরে বলেন, এগিয়ে যাওয়ার এবং এগিয়ে নেওয়ার এখনই সময়।তিনি বিভাগীয় শহরের জন্য গৃহীত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন ত্বরান্বিত করতে সংশ্লিষ্টদের আরও তৎপর হওয়ার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মোস্তাফা জব্বার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতি, মহান মুক্তিযুদ্ধ, রেলযোগাযোগ উন্নয়নসহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে মরহুম এডভোকেট আনিসুর রহমান খানের অবদান গভীর কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণে করেন। অনুষ্ঠানে সমাজকল্যান প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান মরহুম এডভোকেট আনিসুর রহমান খানের জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বলেন, তিনি তার কাজের মাধ্যমে অমর হয়ে থাকবেন।সাংস্কৃতিক বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট আনিসুর রহমান খানের সাথে পারিবারিক স্মৃতি রোমন্থন করে বলেন, ময়মনসিংহ বিভাগ প্রতিষ্ঠায় তার অবদান চিরজাগরূক হয়ে থাকবে। তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী তারাকান্দি হয়ে জামালপুর যমুনা সেতু রেল সংযোগ প্রতিষ্ঠায় এই অঞ্চলের মানুষের দাবি প্রতিষ্ঠার লড়াইয়ে তার ভূমিকা গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তিনি বলেন, এডভোকেট আনিসুর রহমান খান তার কাজের মাধ্যমে চির অম্লান হয়ে থাকবেন।বক্তারা এডভোকেট আনিসুর রহমান খানের স্মৃতি চারণ করেন এবং তারা এই মহান মানুষটিকে চিরজাগরূক করে রাখতে তার নামে একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার উদ্যোগ গ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

Share This Post