মুজিব বর্ষ উপলক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করলো “বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড”

মুজিব বর্ষ উপলক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করলো “বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড”

মুজিব বর্ষ উদযাপনের অংশ হিসেবে শিক্ষার্থীদের মধ্যে জাতির পিতা সম্পর্কে জানা ও চর্চার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে উন্মুক্ত রচনা ২০২০-এর প্রতিযোগিতার আয়োজন করে জাতীয় পর্যটন সংস্থা “বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড”। দুটি ক্যাটাগরিতে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়, ক – গ্রুপের রচনার বিষয় ছিল (৮ম থেকে ১০ম শ্রেণী): “বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ” এবং খ – গ্রুপের রচনার বিষয় ছিল (একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণী): “পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন”। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে থেকে প্রাপ্ত রচনা যাচাই বাছাই করে শীর্ষস্থানীয় ১০ জনকে বিজয়ী ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত থাকলেও যৌথভাবে বিজয়ী হওয়ার কারনে মোট ১৪ জনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। সাম্প্রতিক বিজয়ীদের মাঝে আর্থিক পুরস্কার, বই ও সনদপত্র হস্তান্তর করা হয়।

ক – গ্রুপের বিজয়ী ৬ জন শিক্ষার্থীরা হলেন: ১ম মো: নাফিস উল্লাহ, গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুল; ২য় সাদিয়া জামান, বীণাপাণি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, গোপালগঞ্জ; ৩য় ঐশী রানী সাহা, বাড্ডা গার্লস হাই স্কুল এন্ড টেকনিকাল কলেজ; যৌথভাবে ৪র্থ রায়হান ছিদ্দিক ফয়সাল, ফেনী সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, ফেনী ও আনিকাহ্ সিদ্দিকী, হলি-চাইল্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, দাপুনিয়া, সদর, ময়মনসিংহ এবং ৫ম মোছা: আয়শা সুলতান, সরকারি ইকবালনগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, খুলনা।
খ – গ্রুপের বিজয়ী ৮ জন শিক্ষার্থীরা হলেন: ১ম তাসনিম তিশা, বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজ; যৌথভাবে ২য় সেঁউতি সাহা সৃজা, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ, কুমিল্লা ও তাসমিম সাদিয়া বর্ষা, ইব্রাহীম খাঁ সরকারি কলেজ ভূঞাপুর, টাঙ্গাঈল; ৩য় ইবনূর আল হা-মীম, নটর ডেম কলেজ, ঢাকা; যৌথভাবে ৪র্থ সুমাইয়া আক্তার সিগমা, সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ, পাবনা ও মাহাবুবা ইয়াসমিন মীম, সরকারি বাঙালা কলেজ এবং যৌথভাবে ৫ম জারিন তাসনিম রাফা, কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজ, কুমিল্লা ও মোছা: রাফিয়াতেন জান্নাত বর্ষা, রংপুর সরকারি কলেজ, রংপুর।
বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা – সিইও (অতিরিক্ত সচিব) জাবেদ আহমেদ বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার প্রদান করার লক্ষ্যে অপেক্ষায় ছিলাম কিন্তু কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের কারণে তা সম্ভব হয়নি। ঢাকার বাহিরের বিজয়ীদের পুরস্কার ডাকযোগে পৌছে দেয়া হয়েছে এবং ঢাকায় অবস্থানরত এমন বিজয়ীদেরকে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড অফিস থেকে প্রদান করা হয়েছে। তিনি একই সাথে বিজয়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমি আশা করছি তোমাদের এই ধারা অব্যাহত রাখবে। পুরষ্কার হিসেবে যা পেয়েছ তার মধ্যে বিশেষ করে এই বই গুলো পড়লে জাতির পিতা সম্পর্কে আরো জ্ঞান লাভ করতে পারবে।  

Share This Post