ভালুকায় বনভোজনের নৌকা ডুবে নিখোঁজ ২ জনের মৃতদেহ উদ্ধার

ভালুকায় বনভোজনের নৌকা ডুবে নিখোঁজ ২ জনের মৃতদেহ উদ্ধার

আদ্রিয়া রুম্পা (ভালুকা,ময়মনসিংহ):
ময়মনসিংহের ভালুকারর রাজৈ ইউনিয়নের উড়াহাটি গ্রামের খিরু নদীতে সরকারী হাসপাতালের ডাক্তারদের বনভোজনের নৌকার সাথে বালুবাহী নৌকার সংঘর্ষে নিখোঁজ চিকিৎসকসহ ২ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।
মঙ্গলবার দুপুরে ভালুকা থেকে খীরু নদী পথে ভালুকা সরকারী হাসপাতালের চিকিৎসকরা পার্শ্ববর্তী উপজেলার কাউরাইদ এলাকায় শীতলক্ষা নদীতে ভ্রমন শেষে। ফিরে আসার সময় রাত ৮টার দিকে উপজেলার উড়াহাটি এলাকার খীরু নদীতে হাসপাতালের ডাক্তারদের পিকনিকের নৌকাটিকে অপর আরেকটি বালুবাহী নৌকা ধাক্কা দিলে পিকনিকের নৌকাটি ডুবে যায়। এতে চিকিৎসক অমিত কুমার রায়,সাউন্ড সিস্টেম অপারেটর তানভীর নিখোঁজ হয়।
খবর পেয়ে ফায়ারসার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযানে নেমে,রাত ১২টার দিকে তানভীবের মৃতদেহ উদ্ধার করে,পরে রাতভর অভিযানের পর বুধবার দুপুর ১২টার দিকে চিকিৎসক অমিত কুমার রায়ের মৃত দেহ উদ্ধার করেন। মৃতদেহ দুটি উদ্ধারের পর স্বজনদের আহাজারীতে বাতাস ভারী হয়ে উঠে। হাসপাতাল এলাকা জুরে নেমে আসে শোকের ছাঁয়া। নৌকা ডুবে নিহত চিকিৎসক অমিত কুমার রায়ের বাড়ী গাজীপুরের বিলাশপুরে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ভালুকা সরকারী হাসপাতলের মেডিক্যাল অফিসার হিসেবে তিনি যোগদান করেন। নিহত তানভীর বন্ধু মাল্টি মিডিয়া কাজ করতো তার বাড়ী উপজেলা ঝালপাজা গ্রামে।
এ ব্যাপারে ভালুকা ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র ষ্টেশন অফিসার মামুন জানায়,নৌকা ডুবির খবর পাওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল রাতেই অভিযান শুরু করে রাতে ১জন এবং বুধবার দুপুরে আরও ১জনসহ ২জনের মৃতদেহ উদ্ধার করে ভালুকা মডেল থানায় হস্থান্তর করা হয়।
এ ঘটনায় আহত হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ডা. মেহেদী হান্নান খান ও আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা.হাসিনকে ভালুকা উপজেলা সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে,এখন তাদের অবস্থা উন্নতির দিকে বলে জানাযায়।
এই ঘটনায় বালুবাহী ঘাতক নৌকা কিংবা চালককে আটক করা সম্ভব হয়েছে কিনা এই বিষয়ে জানতে ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল ইসলামের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি#

Share This Post