বাঘায় সরকারী খাস জমি দখল করে ইমারত নির্মানের অভিযোগ

বাঘায় সরকারী খাস জমি দখল করে ইমারত নির্মানের অভিযোগ

হাবিল উদ্দিন ( বাঘা, রাজশাহী): রাজশাহীর বাঘা উপজেলাধীন আমোদপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পার্শে সরকারী জমি দখল করে মার্কেট নির্মানের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
আমোদপুর গ্রামের আফতার আলীর দুই ছেলে রবিউল ইসলাম(৪০) ও তাহাজ্জত আলী(৩৭) সরকারী খাস জমিতে জোরপূর্বক মার্কেট নির্মান করছেন বলে লিখিত জেলা প্রশাসক বরারব ০৩/০২/২১ অভিযোগ জমা হয়েছে।অভিযোগের ভিত্তিতে সত্যতা পাওয়াতে বাঘা উপজেলা প্রশাসন এর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামানস্বাক্ষরিত স্বারক নং ৫১২ নোটিশ জারি করেন রবিউল, পিতা আবতাব এর বিরুদ্ধে।নোটিশে- এতদ্বারা আপনাকে জানানো যে,আপনি সরকারী ১ নং খাস খতিয়ান জমির উপরে অবৈধ ভাবে পাকা ইমারত নির্মান করছেন।এমতাবস্থায় সরকার এবং স্তানীয় কর্তৃপক্ষের ভূমি ও ভবন(দখন পূনরুদ্ধার)অধ্যাদেশ ১৯৭০ মোতাবেক অবৈধ ভাবে নির্মিত স্থাপনা আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে সরিয়ে  নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া গেল।অন্যথায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে নিলামে বিক্রয় করা হবে।উল্লেখ্য, বাজুবাঘা মৌজার ৬২৮ নং খতিয়ানের ৬০৪৫ দাগে ২১ শতাংশ জমির মালিক আজের মন্ডল। এই জমির সাথেই সরকারী খাস জমি ও বাঘা আড়ানী পাকা সড়ক রয়েছে।
বিবাদী রবিউল ইসলাম জানান,এসিল্যান্ড স্যার এর একটি নোটিশ পেয়েছি এবং স্যারের সাথে দেখা করে বলছি একাজ বন্দ রাকব। তবে এখনও নির্মানকৃত গাঁথুনি ভেঙ্গে ফেলা হয়নি।
এবিষয়ে বাঘা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন,অবৈধ স্থাপনা নিজ দায়িত্বে ভেঙ্গে নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। যদি তারা না নেই তাহলে যে কোনো সময় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Share This Post