বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিমের ১২তম মৃত্যুবার্যিকী ঘরোয়াভাবে পালিত

বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিমের ১২তম মৃত্যুবার্যিকী ঘরোয়াভাবে পালিত

শামসুল কাদির মিছবাহ (সুনামগন্জ) :
বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিমের ১২ তম মৃত্যুবার্যিকী ছিলো গতকাল। ২০০৯ সালের ১২ সেপ্টেম্বর ৯৩ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন এই কিংবদন্তি বাউল।
বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিম পুত্র নূর জালাল বলেন, করোনা মহামারীর কারণে এবার ঘরোয়াভাবে বাবা’র মৃত্যুবার্ষিকী পালন করছি। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে বাউল ভক্তবৃন্দরা আসছেন শ্রদ্ধা জানাতে।
উল্লেখ্য, ১৯১৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার উজানধল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন বাউল সুফি সাধক শাহ আব্দুল করিম। কালনী নদীর তীরে বেড়ে ওঠা ইব্রাহীম আলী ও নাইওরজানের ঘরে জন্ম নেয়া এই বাউল সম্রাট ছেলেবেলা থেকেই শুরু করেন সঙ্গীত সাধনা। শাহ আবদুল করিমের প্রেরণার স্থান ছিল তাঁর স্ত্রী আফতাবুন্নেসা। তিনি তাঁকে আদর করে ডাকতেন ‘সরলা’। স্ত্রীর প্রয়াণের পর সরলাকে নিয়েও গান রচনা করেছেন। ভাটি অঞ্চলের মানুষের জীবনের সুখ, দুঃখ প্রেম-ভালোবাসা, শ্রষ্টার উপাসনাও উঠে এসেছে গানে। বাংলা একাডেমির উদ্যোগে তাঁর ১০টি গান ইংরেজিতে অনূদিত হয়েছে।

Share This Post