ফরিদপুর ৬টি বন্যাকবলিত উপজেলায় প্রায় ১৩৫২ হেক্টর ফসলি জমি পানির নিচে

ফরিদপুর ৬টি বন্যাকবলিত উপজেলায় প্রায় ১৩৫২ হেক্টর  ফসলি জমি পানির নিচে

জাকির হোসেন (ফরিদপুর ) :

ফরিদপুর জেলা ৯ টি উপজেলার সমন্বয়ে  গঠিত। চলমান বন্যায় সবগুলো উপজেলায় বন্যায় ফসলি জমির ক্ষতি না হলেও ৬ টি উপজেলার ১৩৫২ হেক্টর ফসলি জমি পানির তলে  নিমজ্জিত। এতে ৫৩৫২ জন চাষী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এর মধ্যে রয়েছে, ফরিদপুর সদর,চরভদ্রাসন, মধুখালী, ,ভাঙ্গা, আলাফাডাঙ্গা,ও  সদরপুর  উপজেলা। ফরিদপুর সদরের ফসলের অধীন মোট  জমির পরিমান  ১৪ হাজার হেক্টর। এর মধ্যে  নিমজ্জিত রোপা আমানের পরিমান ১৪৮ হেক্টর। কলাবাগানের আওতায় মোট ফসলি জমি ১৫৫ হেক্টর, নিমজ্জিত বাগান  জমির পরিমান ১৭ হেক্টর। সবজি ক্ষেতের জমির পরিমান ৭৫০ হেক্টর, নিমজ্জিত সবজি ক্ষেতের জমির পরিমান ১৬ হেক্টর, বোনা আমন ফসলি জমির পরিমান ৮০০ হেক্টর, পানিতে নিমজ্জিত জমির পরিমান ৯২ হেক্টর। মোট ফসলি জমির পরিমান ৩১০৫ হেক্টর এবং মোট নিমজ্জিত জমির পরিমান২৭৩ হেক্টর।
ফরিদপুর সদর উপজেলার নিমজ্জিত এলাকাগুলো হলো, চরমাধবদিয়া, হাফেজডাঙ্গী,ওয়াজেদ মুন্সীর ডাঙ্গী, জমাদ্দার ডাঙ্গী, কানাইপুর,অম্বিকাপুর,ডিক্রীরচর, (বৃষ্টির পানিতে ৫ হেক্টর জমি সহ)। বন্যায় মোট ক্ষতিগ্রস্ত চাষীর সংখ্যা ১৫১০ জন।
চরভদ্রাসন উপজেলায় ফসলের অধীন জমির পরিমান স্থানীয় আউশ ধানের অধীন জমির পরিমান ১৫৪৫ হেক্টর, এর মধ্য নিমজ্জিত ১৫ হেক্টর, , আউশ ধান উপশী জমির পরিমান ১৪৫ হেক্টর, নিমজ্জিত জমির পরিমান ৩ হেক্টর, বোনা আমনের ফসলের অধীন জমির পরিমান ২৩০০ হেক্টর এবং নিমজ্জিত জমির পরিমান ৪২ হেক্টর, রোপা আমনের অধীন ফসলি জমি ১৪৫ হেক্টর এবং নিমজ্জিত জমির পরিমান ২৭ হেক্টর।
সবজীর আওতায় ফসলি জমি ১৮ হেক্টর নিমজ্জিত জমি ৮ হেক্টর, কলা বাগানের ফসলি জমির পরিমান ১৫০ হেক্টর, নিমজ্জিত জমির পরিমান ১০ হেক্টর।  উপজেলায় ফসলি জমির আওতার মোট জমি ৪৩০৩ হেক্টর এবং নিমজ্জিত জমির পরিমান ১০৫ হেক্টর। 
চরভদ্রাসনের নিমজ্জিত এলাকাগুলো হলো,একরাম মাতুব্বরের ডাঙ্গী, ছমির মাতুব্বরের ডাঙ্গী, চরহরিরামপুর, উল্লেখ্য, নিমজ্জিত জমির অধিকাংশ নদীভাঙ্গনের কারনে নদী গর্ভে ফসল সহ বিলিন হয়ে গেছে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত চাষীর পরিমান ১৫০ জন।
মধুখালী উপজেলার আওতাধীন ফসলের অধীন রোপা আমন মোট ফসলি  জমির পরিমান ৮৬৪০ হেক্টর, নিমজ্জিত জমির পরিমান ৫ হেক্টর। 
উল্লেখ্য, মধুমতি নদীর পানি বৃদ্বি না পেলে ক্ষতির পরিমান কমবে। উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্ত চাষীর পরিমান ৩৫ জন।
ভাঙ্গা উপজেলার মোট রোপা আমন ফসলি জমির পরিমান ৫৮৬০ হেক্টর,  নিমজ্জিত ফসলি জমির পরিমান ৮৫০ হেক্টর, সবজির ফসলি জমির পরিমান ১৪০ হেক্টর,  নিমজ্জিত ফসলি জমির পরিমান ৩০ হেক্টর, মোট জমির পরিমান ৬,০০০ হেক্টর, নিমজ্জিত ফসলি জমির  মোট পরিমান ৮৮০ হেক্টর। ভাঙ্গার  সকল ব্লকই নিমজ্জিত। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের পরিমান ৩০৫০ জন।
আলফাডাঙ্গা উপজেলায়  রোপা আমনের আওতায়  ফসলি জমির পরিমান ১৬০৫ হেক্টর, নিমজ্জিত জমির পরিমান,৩৫ হেক্টর, সবজি ক্ষেতের পরিমান ৯৫ হেক্টর, নিমজ্জিত সবজি ক্ষেতের পরিমান  ৫ হেক্টর। মোট ফসলি জমির পরিমান ১৭০০ হেক্টর এবং নিমজ্জিত ফসলি জমির পরিমান ৪০ হেক্টর।  
আলফাডাঙ্গা মোট ফসলি জমির পরিমান ১৭০০ হেক্টর  এবং পানিতে নিমজ্জিত ফসলি জমির পরিমান ৪০ হেক্টর। 
আলফাডাঙ্গা উপজেলায়   বন্যায় নিমজ্জিত এলাকাগুলো হলো, হেলেঞ্চা, খোলাবাড়িয়া,কাতলাসূর,গোপালপুর, টগরবন্দ,,টিঠা,কুতুবদিয়া, বেলপানা,উথলী,পাচুরীয়া,ধুলজুড়ি।উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্ত চাষীর পরিমান। ৪৬০ জন।
সদরপুর উপজেলায় রোপা আমান ফসলের অধীন মোট জমির পরিমান ৪৯৮৯ হেক্টর এর মধ্যে ফসলসহ নিমজ্জিত জমির পরিমান ৩৭ হেক্টর।
ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলো হলো,ঢেউখালী,চরমানাইর, চরনাসিরপুর, নারকেলবাড়িয়া। উপজেলায় মোট ক্ষতিগ্রস্ত চাষীর পরিমান ১৪৭ জন।
উল্লেখিত, বন্যাকবলিত ৬ টি উপজেলায় সর্ব মোট ফসলের অধীন  জমির পরিমান ৯৩,০৫০৭ হেক্টর  এবং মোট ফসলসহ  নিমজ্জিত জমিরমান ১৩৫২ হেক্টর।  মোট ক্ষতিগ্রস্ত চাষী ৬ উপজেলায় ৫,৩৫২ জন।
প্রসঙ্গত, ফরিদপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ, অধিপ্তর খামারবাড়ি ফরিদপুরের  অতিরিক্ত,  উপ -উপরিচালক(শষ্য) মোঃ জাহিদুল আলম গত বুধবার ( ৮ সেপ্টেম্বর) উল্লেখিত, তথ্য দিয়ে ইনকিলাব জেলাসংবাদাতা কে নিশ্চিত করছেন। 
সকল বিষয়, অফিসের পক্ষে  সাংবাদিকদের  তথ্য প্রধানকারী সসমন্বয়কারী,, তরুন কান্তি,  বিজিডি ( কৃষি) উপসহকারী কৃষি অফিসার গণমাধ্যম কে জানান, অন্য কোন উপজেলার সঠিক তথ্য উপাও এখন পর্যন্ত নিশ্চিত না হওয়া বন্যাকবলিত অন্যান্য তথ্য সরবরাহ করা গেল না। ফরিদপুর সদর চরমাধবদিয়া চাষী ফোরকান, চরভদ্রাসনের চরহরিরামপুরের চাষী শহীদ,মধুখালীর বেলেশ্বর এলাকার চাষী আবদুল খান,ভাঙ্গা উপজেলার চাষী হাফিজুল, আলাফাডাঙ্গার ইমরান, সদরপুরের মফিজুল ইনকিলাবকে বলেন, ভাই শেষ হয়ে গেছি এই ক্ষতি পুরন করার অবশিষ্ট আমাদের  কিছু নাই।

Share This Post