ফরিদপুরের সদরপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটছে

ফরিদপুরের সদরপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটছে

নাজিম বকাউল (ফরিদপুর) : 
ফরিদপুরের সদরপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বাড়িঘর ভাংচুর,স্বর্নালাংকার , নগদ টাকা, গবাদি পশুসহ  বিভিন্ন মালামাল লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় চারজন আহত হয়ে সদরপুর উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধিন আছেন বলে । এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ও আধিপত্য বিস্তারের লক্ষ্যে প্রতিপক্ষের লোক এই হামলা ও লুটপাট করছে বলে জানান ভুক্তভোগিরা । এই ঘটনায় সদরপুর থানায় একটি এজাহার দায়ের করা হয়েছে।উপজেলার হাট  হাটকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের পুর্বকান্দি গ্রামে শনিবার সকালে ৪০/৫০জন লোক লাঠি শোটা ও দেশিয় অস্ত্র নিয়ে সালাম ফকির,হাতেম সরদার,মান্নান সরদার,সিরাজ,কামাল শেখ,ফরাজি ও সামাদসহ ৮ টি বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট  করে বলে হামলার স্বীকার পরিবার গুলো অভিযোগ করেন। এই প্রতিবেদককে হাতেম সরদার জানান, কোরমান আলী কুটি,এরুন ফকির ও হারুন ফকিরের নেতৃত্বে আমাদের বাড়ি ঘরে হামলা,ভাংচুর ও লুটপাট করছে। ছালাম ফকির জানান- আমার ঘর ভাংচুর করছে নগদ ৬ লক্ষ টাকা, গহেনা ও একটি গরু নিয়ে গেছে হামলাকারীরা।  হাটকৃষ্ণপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ বিল্লাল ফকির বলেন, এলাকার কিছু দূস্কৃতি লোক দেশি অস্ত্র নিয়ে পূর্বকান্দি এলাকার ১০/১২টি বাড়ি ঘর ভাংচুর ও লুটতরাজ করছে । আমি আইন শৃংখলা বাহিনীর নিকট এই ঘটনার সুষ্টু তদন্তের মাধামে অপারাধীদের আইনের আওতায় আনার দাবী জানান।এবিষয়ে অভিযুক্ত  কোরমান আলী কুটি মিয়ার সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি হামলা কারীদের আরো ফিরিয়েছি। আমি ইউপি নির্বাচন করবো সে কারনে আমাকে জড়িয়ে এই অভিযোগ করা হয়েছে।
 সদরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  সূব্রত গোলদার জানান, এই ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি,তদন্ত সাপেক্ষে মামলা রুজু হবে। শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

Share This Post