প্রবাসীকল্যাণ ব্যাংকের ৩ নতুন শাখা উদ্বোধন

প্রবাসীকল্যাণ ব্যাংকের ৩ নতুন শাখা উদ্বোধন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর ও সরাইল উপজেলায় এবং চাঁদপুরের মতলব উপজেলায় প্রবাসীকল্যাণ ব্যাংকের আরও ৩ নতুন শাখার উদ্বোধন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) বেলা ১১টায় প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি প্রবাসীকল্যাণ ব্যাংকের ৩টি নতুন শাখার উদ্বোধন করেন।

ভার্চুয়াল উদ্বোধন অনুষ্ঠানটি প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষ থেকে পরিচালনা করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ এবাদুল করিম এবং প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান সচিব (প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের চেয়ারম্যান) ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন।

অনুষ্ঠানে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, প্রবাসী কর্মীরা রেমিট্যান্স যোদ্ধা হিসেবে দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন। যাদের অধিকাংশই গ্রামাঞ্চল হতে কর্মসংস্থানের উদ্দেশ্যে বিদেশে যায়। এ কথা বিবেচনা করে তিনি প্রবাসী কর্মীদের হাসি-মুখে সেবা দেওয়ার আহ্বান জানান।

মন্ত্রী বলেন, বিদেশগামী ও বিদেশফেরত কর্মীদের পুনর্বাসনে সরল সুদে এবং সহজ শর্তে বিশেষ ঋণ প্রদানের মাধ্যমে প্রবাসীকল্যাণ ব্যাংক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

তিনি আরও বলেন, প্রবাসী কর্মীদের কল্যাণের কথা বিবেচনা করে ব্যাংকের সেবার মান বৃদ্ধি ও অবকাঠামো শক্তিশালী করতে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

ইমরান আহমদ বলেন, আজ তিনটি শাখার উদ্বোধন হলো। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে আরও কিছু শাখার উদ্বোধন করা হবে। এছাড়াও দেশের প্রতিটি উপজেলায় পর্যায়ক্রমে প্রবাসীকল্যাণ ব্যাংকের শাখা খোলা হবে।

সভায় এবাদুল করিম বলেন, বৃহত্তর কুমিল্লার অধিকাংশ পরিবার থেকে প্রতি বছর বহুসংখ্যক কর্মী কর্মসংস্থানের উদ্দেশ্যে বিদেশে যায়।

তিনি বলেন, যথাযথ প্রশিক্ষণ দিয়ে এসব কর্মীকে দক্ষ করে বিদেশে পাঠাতে পারলে আরও অধিক পরিমাণে রেমিট্যান্স আসবে।

প্রবাসী কল্যাণ সচিব ও ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবাসী কর্মীদের কল্যাণের কথা বিবেচনা করে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করেছেন। প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক প্রধানমন্ত্রীর ভিশন বাস্তবায়নে অঙ্গীকারবদ্ধ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রবাসীকল্যাণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহিদুল হক। উপস্থিত ছিলেন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক মো. হামিদুর রহমান, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. নাজীবুল ইসলাম, বিএমইটির মহাপরিচালক মো. শহীদুল আলম, বোয়েসেল-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. বিল্লাল হোসেনসহ নবীনগর, সরাইল ও মতলবের জনপ্রতিনিধি এবং বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা।

Share This Post