তুরষ্কের ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রিজের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী এবং জাতীয় প্রতিরক্ষা উপমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করলেন সেনাবাহিনী প্রধান

তুরষ্কের ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রিজের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী  এবং জাতীয় প্রতিরক্ষা উপমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করলেন সেনাবাহিনী প্রধান

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি বৃহস্পতিবার (১৯-০৮-২০২১) তুরষ্কের ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রিজের মন্ত্রী ইসমাইল দেমির (Ismail Demer) এবং জাতীয় প্রতিরক্ষা উপমন্ত্রী মুহসিন দেরে (Muhsin Dere) এর সাথে সাক্ষাৎ করেন।

উভয়ের সাথে সাক্ষাতে সেনাবাহিনী প্রধান বলেন, তুরষ্ক এবং বাংলাদেশ তথা দু’দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে দীর্ঘ কৌশলগত বন্ধুত্ব এবং সাংস্কৃতিক বন্ধন রয়েছে। তাঁর এই সফরের পরে এই সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় হবে বলে তিনি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। আন্তর্জাতিক প্রতিরক্ষা মেলা – ২০২১ পরিদর্শন উপলক্ষে তুরষ্কে তাঁর সরকারী সফরের মাধ্যমে দু’দেশের সামরিক বাহিনী, এবং বিশেষ করে দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে সহযোগিতার নতুন দ্বার উন্মোচিত হবে বলেও মন্তব্য করেন জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। তিনি তাঁকে এবং তাঁর প্রতিনিধি দলকে প্রতিরক্ষা মেলায় আমন্ত্রণ জানানোর জন্য তুর্কি ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রিজের মন্ত্রী এবং জাতীয় প্রতিরক্ষা উপমন্ত্রী, উভয়কেই ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

তুরষ্কের জাতীয় প্রতিরক্ষা উপমন্ত্রী মুহসিন দেরে সামরিক সরঞ্জামাদির পাশাপাশি সেনাসদস্যদের প্রশিক্ষণ, প্রযুক্তি বিনিময়, ইত্যাদি ক্ষেত্রেও সেদেশের পক্ষ থেকে বাংলাদেশকে সকল সহযোগিতা এবং সহায়তার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

তুর্কি ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রিজের প্রধান ইসমাইল দেমির আশ্বাস দেন যে তুরস্ক এর পক্ষ থেকে বাংলাদেশের সাথে চলমান সকল বিষয় তিনি খতিয়ে দেখবেন এবং প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করবেন, যাতে করে ভবিষ্যতে উভয় দেশের মধ্যে প্রতিরক্ষা সহযোগিতা আরও বন্ধুত্বপূর্ণ এবং কল্যাণকর হয়।

আন্তর্জাতিক প্রতিরক্ষা মেলা – ২০২১ এর দ্বিতীয় দিনে (২০-০৮-২০২১) সেনাবাহিনী প্রধান প্রদর্শনীর বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন এবং বিবিধ সরঞ্জমাদির ব্যাপারে অবহিত হন। এছাড়াও বিভিন্ন প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের সাথে তিনি আলোচনা ও মত বিনিময় করেন। আন্তর্জাতিক প্রতিরক্ষা মেলা – ২০২১ সমাপনান্তে সেনাবাহিনী প্রধান তুরস্কের সেনাবাহিনী প্রধান এবং চিফ অব জেনারেল স্টাফ এর সাথে সাক্ষাৎ করবেন।

Share This Post