চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে যুবলীগ নেতা তৌহিদুজ্জমান এর ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা ও মতবিনিময়

চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে যুবলীগ নেতা তৌহিদুজ্জমান এর ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা ও মতবিনিময়

এনামুল হাসান (কেশবপুর) :
আসন্ন ইউপি নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই সরগরম হয়ে উঠছে রাজনীতির মাঠ। দলীয় নেতা-কর্মিরাও চাঙ্গা হয়ে উঠছেন বেশ। কেশবপুর উপজেলার হাসানপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সামনে রেখে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সদস্য তৌহিদুজ্জমান তহিদ প্রতিদিন সকাল হতে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকার হাট-বাজারে, মাঠে-ঘাটে, পাড়া-মহল্লার মানেুষের সাথে মতবিনিময় ও গণসংযোগ করার পাশাপাশি লিফলেট বিতরণ করে ব্যাপক নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।
তারই ধারাবাহিকতাই বুধবার রাতে নির্বাচনী এলাকার হাসানপুর বাজারে ও কাবিলপুর গ্রামের মানুষের বাড়ি-বাড়ি গিয়ে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করার পাশাপাশি স্থানীয় বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন, গুনীজন, শিক্ষক, ইমাম, ব্যবসায়ী সহ স্থানীয় সাবেক এবং বর্তমান জনপ্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় ও গণসংযোগ করেছেন।
হাসানপুর ইউনিয়নের ভোটার মাসুদ জানান, চেয়ারম্যান পদে শক্ত প্রার্থী হিসেবে উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সদস্য তৌহিদুজ্জমান তহিদ ভাইকে ঘিরে বিভিন্ন এলাকার পাড়া-মহল্লায়, পথে-ঘাটে চায়ের দোকানে আলোচনায় রয়েছেন। আওয়ামীলীগের প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে অগ্রভাগে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। ছাত্র জীবন থেকে রাজপথের লড়াকু সৈনিক হওয়ায় রাজনীতির ময়দান ও তৃণমূলে ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে। এলাকার দলীয় নেতা-কর্মীদের আস্থা অর্জন করার পাশাপাশি  ছাত্র ও যুব সমাজের মাঝেও তার গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। দলের অনেক নেতা-কর্মীদের চাওয়া চেয়ারম্যান পদে তৌহিদুজ্জমান তহিদ ছাড়া কোন বিকল্প প্রার্থী নেই। পারিবারিক ভাবে আওয়ামী লীগের রাজনীতির ধারক-বাহক এ নেতা দলীয় মনোনীত প্রার্থী হলে সবাই জোটবদ্ধ হয়ে তার পক্ষে মাঠে নামবে অনেক নেতা-কর্মীরা।
চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ তৌহিদুজ্জমান তহিদের সাথে একান্ত আলাপ কালে তিনি সাংবাদিকদের বলেন,  স্বাধীনতার মহান স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সংগঠনকে শক্তিশালী করতে ১১ নং হাসানপুর ইউনিয়নের প্রতিটি এলাকার মানুষের মাঝে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। তারই সুযোগ্য কন্যা বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বিশ্বের বুকে বাংলাদেশকে আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবে পরিচিতি লাভ করিয়েছেন। তার উন্নয়ন ও সেবা মানুষের দৌড় গড়ায় পৌঁছে দিতে কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের অবিভাবক দলীয় সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে যদি মনোনয়ন দেন তাহলে অন্যদের তুলনায় বেশি ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়ে ইউনিয়নবাসী এবং আওয়ামী লীগের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে পারব বলে আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি। হাসানপুর ইউনিয়ন থেকে অন্যায়, অত্যাচার, মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গী নির্মূল করে সমাজের সাধারণ মানুষের ন্যায্য অধিকার ফিরে দিতে চেষ্টা করবো।তিনি আরো বলেন, ইউনিয়ন বাসী আমাকে ভালোবেসে যেভাবে বুকে আগলে ধরে রেখেছে, সেজন্য আমি তাদের ভালোবাসার কাছে ঋণী। তাদের এই ঋণ আমি কখনো পরিশোধ করতে পারব না। আমি কথা দিলাম সদাসর্বদা তাদের সুখে দুখে পাশে থাকব। ইউনিয়নের সকল মানুষকে নিয়ে একটি সুন্দর সুশৃংখল মডেল ইউনিয়ন পরিষদ গড়ে তুলবো “ইন ‘শা আল্লাহ“।

Share This Post