গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে বটতলা খাল উদ্ধার অভিযান সম্পন্ন ॥ পানি প্রবাহ শুরু

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে বটতলা খাল উদ্ধার অভিযান সম্পন্ন ॥ পানি প্রবাহ শুরু

সরদার মজিবুর রহমান (গোপালগঞ্জ) : গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার পৌর সদরের চৌরঙ্গি থেকে আটাডাংগার বাওড় পর্যন্ত বটতলা খাল পরিষ্কার ও খাল থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান সম্পন্ন করেছে উপজেলা প্রশাসন। ৩দিন ব্যাপী উদ্বার কাজ শেষ করে আজ থেকে তা পানি প্রবাহ শুরু হয়। 
শনিবার (৯ অক্টোবর) চলমান কার্যক্রমে চরপাড়া থেকে খাল পরিষ্কার এবং খালের উপরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়েছে। ইউএনও জানিয়েছেন কুমার নদের টেংরাখোলা থেকে সদরের চৌরঙ্গি হয়ে গোপীনাথ পুরের আটাডাঙ্গার বাওড় পর্যন্ত ২ কিলোমিটারের সামান্য বেশী খালটিতে সর্বচ্চ ৫শ থেকে হাজার মিটার নানান কারনে বন্ধ হয়ে আছে। এটা জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় লোকের সার্বিক সহযোগিতায় খালটির পানি চলাচলের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এতে উপজেলার শহরের জলাবদ্ধতা হ্রাসপাবে। 
উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোবায়ের রহমান রাশেদের নেতেৃত্বে ওই খাল পরিস্কার ও পানি চলাচল নিশ্চিত অভিযানে উপস্থিত ছিলেন মুকসুদপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ কাবির মিয়া, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি শেখ আলাউল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রান ও সমাজ কল্যান সম্পাদক হায়দার হোসেন, সাংবাদিক  ছিরু মিয়া,  পৌর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক লুৎফর রহমান মোল্যা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।অভিযান বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোবায়ের রহমার রাশেদ আরও  বলেন, সরকার সারা দেশে নদী যেভাবে দখলমুক্ত করেছে সেভাবে মুকসুদপুর উপজেলার খালগুলোও দখলমুক্ত ও খাল পরিষ্কার করতে হবে। খালটি দীর্ঘদিন অপরিষ্কার থাকায় ভরাট হয়ে পৌরসভার বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতা তৈরী করছে। বর্জ্য অপসারণের পাশাপাশি আমরা খালের পাড় বাঁধানো, গাছ লাগানো ও ওয়াকওয়ে নির্মাণের পরিকল্পনা করেছি। পৌর সদরের এই খালটি পরিষ্কার ও সচল রাখতে পারলে অনেকাংশেই জলাবদ্ধতা কমবে।

Share This Post