গাবুরা সুরক্ষায় বৃহৎ বরাদ্দ হওয়ায় শেখ হাসিনাকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে দোয়া মোনাজাত

গাবুরা সুরক্ষায় বৃহৎ বরাদ্দ হওয়ায় শেখ হাসিনাকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে দোয়া মোনাজাত

এম এ জামান (সাতক্ষীরা) : :
জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) গত মঙ্গলবার (০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১) বৈঠকে আটটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এসব প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে সাত হাজার ৫৮৯ কোটি ৭০ লাখ টাকা। এর মধ্যে ১ হাজার ২০ কোটি ৪২ লাখ টাকার ‘সাতক্ষীরা জেলার পোল্ডার নং ১৫ পুনর্বাসন’ (গাবুরা ইউনিয়ন) প্রকল্পও অনুমোদন হয়।

এর সাথে সংশ্লিষ্ট একনেক কমিটি, সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি ও দাবি দাওয়া আদায়ে সম্মুখ সারির জনসাধারণের কাছে গাবুরাবাসী চিরকৃতজ্ঞ। এ নিয়ে সমগ্র সাতক্ষীরা বাসী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি চিরকৃতজ্ঞ।

ওইদিনকার বৈঠকে প্রকল্পটির অনুমোদনের মধ্যে দিয়ে গাবুরা বাসীর দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিটি একটি পরিণতিতে পৌঁছালো। এখন যত দ্রুত সম্ভব সঠিকভাবে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলেই মানুষের চাওয়া পাওয়া শেষ হবে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সদিচ্ছা, পাউবো সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের জবাবদিহিতামূলক মনোভাব এবং স্থানীয় জনসাধারণের সঠিকভাবে কাজ বাস্তবায়নে সহযোগিতায় পারে অনুমোদিত প্রকল্পের সঠিক বাস্তবায়ন।

স্মরণকালের ইতিহাসে গাবুরা ইউনিয়নের জন্য এই বৃহৎ বরাদ্দের জন্য প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আজ শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) পবিত্র জুম্মার নামাজে ঐতিহ্যবাহী গাইনবাড়ী জামে মসজিদে দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও গাবুরা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সফল চেয়ারম্যান জি.এম শফিউল আযম লেনিন।

দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন অত্র মসজিদের খতিব মাওলানা আবু হানিফা মুহম্মদ ত্বহা। এসময় গাবুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মহসিন আলম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জি.এম আব্দুল মান্নান খোকা, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক জি.এম ইমাম হুসাইন সহ পাঁচ শতাধিক মুসল্লী আমিন আমিন বলে আল্লাহ তা’য়ালার কাছে ফরিয়াদ জানান।

পবিত্র জুম্মার নামাজ শেষে মুসল্লিরা বলেন, গাবুরার মত জায়গায় আমাদের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশিত দাবী উপকূলে বেড়িবাঁধ নির্মাণ হবে, মানুষ বাস্তু-ভিটা নিয়ে নতুন করে স্বপ্ন বুনবে সেই প্রত্যাশা আমাদের সকলের। তবে আমাদের এই উপকূলের দীর্ঘদিনের পরিক্ষিত বন্ধু লেনিন যে লক্ষ্য নিয়ে রাজনীতিতে নেমেছিল এবং এই গাবুরা কে দৃশ্যমান করার জন্য তার যে প্রচেষ্টা, সেটি আজ সফল হতে চলেছে। আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ একই সাথে আমাদের উপকূল বাসীর প্রাণের নেতা লেনিন ভাইয়ের প্রতিও গাবুরাবাসী আজীবন কৃতজ্ঞ থাকবে।

তবে অত্র প্রকল্পের টাকা যাতে সঠিক ভাবে সঠিক জায়গায় বাস্তবায়িত হয়, গাবুরা বাসীর এখন এটাই একমাত্র চাওয়া পাওয়া।

Share This Post