কাজিরহাট যমুনা নদীতে পুলিশের অভিযানে বালু উত্তোলনের ড্রেজার বলগেটসহ গ্রেফতার ৪, মূলহোতা ছালাম পলাতক

কাজিরহাট যমুনা নদীতে পুলিশের অভিযানে বালু উত্তোলনের ড্রেজার বলগেটসহ গ্রেফতার ৪, মূলহোতা ছালাম পলাতক

আলমগীর কবির পল্লব (বেড়া, পাবনা) :
আজ ২২শে আগষ্ট রবিবার ভোর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাবনা কাজিরহাট ঘাট সংলগ্ন যমুনা নদী হতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার সময় ১টি বালু কাটার মেশিন ( ড্রেজার ), ১টি বালু পরিবহন করার নৌযান (বলগেট ) সহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে আমিনপুর থানা পুলিশ । এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মূলহোতা বালু ব্যবসায়ী ছালাম পালিয়ে যায় ।
আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ রওশন আলী জানান, আমরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি, আমিনপুর থানার কাজিরহাট পুরাতন ঘাট সংলগ্ন গেদা মিয়ার বাড়ীর পাশে যমুনা নদী থেকে রাতের আধারে বালু ব্যবসায়ী ছালামসহ একটি চক্র অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে ।এমন সংবাদের ভিত্তিতে থানার এসআই ব্রজেশ্বর বর্মন এ এসআই মুরাদ এ এসআই মাসুদ সঙ্গীয় ফোর্সসহ অভিযান পরিচালনা করলে সেখানে থেকে চারজনকে গ্রেফতার করা হয় এবং ১টি বালু কাঁটার মেশিন ( ড্রেজার ), ১টি বালু পরিবহন করার নৌযান (বলগেট ) আটক করা হয় ।এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বালু ব্যবসায়ী ছালাম পালিয়ে যায় ।
আটককৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে বালু মহল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর ১৫(১) পেনাল কোড আইনের ৪৩১ ধারায় আমিনপুর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে এবং পলাতক আসামী ছালামকে গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত আছে ।
ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়, বালু ব্যবসায়ী ছালামসহ একটি চক্র সরকারী বিধি নিষেধের তোয়াক্কা না করে প্রশাসনের চোখে ধুলো দিয়ে অবৈধভাবে দীর্ঘদিন যাবৎ রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে কৃষি জমি, খাল, বিল, নদী থেকে অবাদে বালু উত্তোলনের মাধ্যমে রমরমা ব্যবসা করে আসছে ।চক্রটি প্রভাবশালী হওয়ায় এলাকার সচেতন মহল মুখ খুলতে সাহস পায় না ।কিছু মানুষ মনে করেন, এদেরকে দ্রুত না থামানো গেলে পরিবেশ ও নদী পাড় ব্যাপক হুমকির মুখে পড়বে ।

Share This Post