আজ পার্থিব মামুনের চ্যানেল আইতে নাটক,বউ তুমি আমার

আজ পার্থিব মামুনের চ্যানেল আইতে নাটক,বউ তুমি আমার

সাত বছর বয়সে গ্রামে যাত্রা পালা দেখতে গিয়ে অভিনয়ের পোকাটা মাথায় ঢুকিয়ে নিয়ে আসেন। বয়স চল্লিশের ধর ধর হলে পোকাটা এখনও মাথা থেকে বের করতে পারেনি। এসময়ে পোকাটার আকৃতি ও ধরন পাল্টেছে। চেয়েছিলেন অভিনয় শিল্পী হলেন পরিচালক। পুরো নাম আব্দুল্লাহ আল মামুন। মিডিয়া কিংবা টেলিভিশনে পার্থিব মামুন নামে পরিচিত। কিশোর বয়সে শষেন্ধু  মুখোপাধ্যায়ের পার্থিব উপন্যাসটি পড়তে গিয়ে মজে গিয়েছিলেন তাতে। নামটি বুকে ধারন করে এগিয়েছেন অনেক দূর। নতুন মুখের সন্ধ্যানে বিজ্ঞাপনে আকৃষ্ট হয়ে খুইয়েছেন অনেক টাকা কুড়ি। কিন্তু পরিশ্রম ত্যাগ ও কাজের প্রতি ভালবাসা নিজের সঙ্গে কখনো প্রতারনা করেনা এই সংজ্ঞা বিশ্বাসে অবশেষে মুক্তি মিলল ৯৯ সালে চাচাতো বোন জামাইয়ের হাত ধরে বিটিভিতে একটি ডুকুফিল্ম এ অভিনয়ের মাধ্যমে। চলচ্চিত্র ও  প্রকাশনা অধিদপ্তরে ল্যাব ও প্রজেক্ট ডিরেক্টরে দায়িত্বে থাকা দুলাভাই শহীদ আব্দুল্লাহ পরামর্শেই পরবর্তী সময়ে সহকারী পরিচালনায় জড়িত হয়। ২০০৩ সালে টেলিভিশনের বাইরে ”ভাগ্য বিড়ম্বনা” নিজের প্রথম পরিচালনার নাটকটি সিডি ডিবিডিতে মুক্তি দেয়। নিজেকে মিডিয়ায় প্রতিষ্ঠিত করতে অনেক চড়াই উৎরাই পার করতে হয়েছে। এমনি বাবার বিটে মাটি শেষ সম্বলটুকুও হারিয়েছেন। কিন্তু হাল ছাড়েন নি কখনো। চ্যানেল আইয়ের একটি টেলিফিল্ম পরিচালনায় মধ্য দিয়ে নিজেকে প্রথম টেলিভিশনে পরিচালক হিসাবে অভিষেক ঘটে। পরবর্তীতে এক এক করে কমবেশী সব গুলো স্যালেটেলাইট চ্যানেলেই তার নাটক প্রচার হতে থাকে। শুধূ পরিচালক হিসাবে নয় একজন লেখক হিসাবেও নিজেকে টেলিভিশনে তুলে ধরেছেন। নিজের লেখা অনেক নাটক ও টেলিভিশনে প্রচারিত হয়। পাশাপাশি একজন ডিজিটাল কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করে ইউটিউব ও ফেইজবুক প্লাটফর্মে। ২০১৫ সালের প্রথম দিকে ইউটিউবে কাজ শুরু করে। এবং দ্রুত সময়ে ইউটিউব প্লেবাটন এওয়ার্ড অর্জন করেন। ইউটিউব থেকে এযাবত কাল চারটি প্লে বাটন অর্জন করেন পাশাপাশি গোল্ড বাটন সহ আরো কিছু পুরষ্কারের অপেক্ষায়। ফেইজবুকেও নিজেকে একজন ডিজিটাল কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হিসাবে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে গেছেন। বিগত দুবছর যাবত নিজের প্রতিষ্ঠান পার্থিব টেলিফিল্ম এর ব্যানারে  যিনি প্রতিদিন নিজের রচনা ও পরিচালনায় ধারাবাহিক নাটক নিয়মিত প্রচার করে যাচ্চেন। তিনি জানান, প্রতিদিন ২৫ মিনিটের ব্যাপ্তিকালে ধারাবাহিক নাটক নির্মান ও প্রচার খুবি কঠিন একটি কাজ এবং গল্পে দর্শক ধরে রাখা এটা আমার একটা বিশাল অর্জন। যে কাজটি বিগত দুবছর যাবত করে যাচ্ছি। প্রতিটি গল্প ৭০/৮০ পর্ব পর্যন্ত টেনে নিয়ে যান। ছোট বড় মিলে এ যাবত কাল প্রায় হাজারের উপরে নাটক শর্টফিল্ম নির্মান করেছেন তিনি। পাশা পাশি তার প্রতিষ্ঠান পার্থিব টেলিফিল্মস এর মাধ্যমে নিজের এলাকার প্রায় ৫০ জনের উপরে মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছেন। তার সাথে কাজ করে যারা সংসার চালাচ্ছেন। সম্প্রতি চ্যানেল আইয়ের জন্য একটি টেলিফিল্ম  নির্মান করেছেন। নীরব, শেহতাজ , টুটুল চৌধুরী, নীলা ইসলাম সহ আরো অনেকেই অভিনয় করেছন। আগামী ২২ সেপ্টেম্বর টেলিছবিটি প্রচার হবে। তার নিমার্নের নাটকগুলোর মধ্যে অন্যতম, বাচাল বাচ্চু, লোকসানি পোলা, অন্তর বিভ্রাট, রাঙ্গা ভুবন,  গেষ্টরুম, গেরামের নায়ক, সুপার ফ্লপ, ভালবাসা বিভ্রাট,  সাগর ভিডিও, ভালবাসা হয়নি বলা সহ আরো অনেক। ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলার অন্তগর্ত আশুগঞ্জ থানার বগইর গ্রামে ১৯৮৩ সালে তার জন্ম। অভিনয় তার রক্তের সাথে মিশে আছে। মৃত্যেু অবধি নাটক নির্মানের মাধ্যমে মানুষের ভালবাসায় বেচেঁ থাকতে চান তিনি।

Share This Post