আইসিটি ক্যারিয়ার এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ শুরু করলো যশোরের কেশবপুর উপজেলার মধুসূদন ডিজিটাল কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার

আইসিটি ক্যারিয়ার এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ শুরু করলো যশোরের কেশবপুর উপজেলার মধুসূদন ডিজিটাল কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক :
তথ্যপ্রযুক্তি খাতে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার প্রত্যয়ে মহাকবি মাইকেল মধু সূদন দত্তের স্মুতিবিজড়িত জন্মভুমি যশোর জেলার কেশবপুর উপজেলার সাগরদাড়ীতে আইসিটি ক্যারিয়ার এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ শুরু করলো মধুসূদন ডিজিটাল কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার। গতকাল নাসিমা এনাম ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক ও আইসিটি ক্যারিয়ার এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাবিনা ইয়াসমিন , মধুসূদন ডিজিটাল কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার এর উদ্যোক্ত পরিচালক এনামুল হাসান নাইম ও মেহেদী হাসান স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানের পক্ষে কর্মসম্পাদন চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন দৈনিক অর্থনীতির কাগজ এর নির্বাহী সম্পাদক এহছান খান পাঠান।

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালের ১ আগস্টথেকে “নামমাত্র কোর্স ফি’তে তথ্য প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ” স্লোগানকে সামনে যাত্রা শুরু করে আইসিটি ক্যারিয়ার। প্রসঙ্গত, নাছিমা এনাম ফাউন্ডেশনের তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান আইসিটি ক্যারিয়ার। সমাজসেবা অধিদফতরের নিবন্ধিত অন্যতম সমাজসেবামূলক সংগঠন এটি। ১৭ বছরের পথ চলায় আইসিটি ক্যারিয়ার নিরবিচ্ছিন্নভাবে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছে। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, চাকুরীপ্রার্থী, সরকারী-বেসরকারী চাকরিজীবী,গৃহিনী এমনকি অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও দলে-দলে প্রশিক্ষণ নিয়েছে আইসিটি ক্যারিয়ার এ। সাধারণ প্রশিক্ষণার্থী ছাড়াও রোটারি ইন্টারন্যাশনাল সহ আরো বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান এর আর্থিক সহায়তায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বাবধানে পাচ শতাধিক নার্সকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে আইসিটি ক্যারিয়ার। বাংলাদেশ জাতীয় বধির সংস্থা সহ আরো বেশ কয়েকটা সামাজিক সংগঠনের সুপারিশে এ পর্যন্ত ৪৬০ জন প্রতিবন্ধীকে সম্পূর্ন বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে আইসিটি ক্যারিয়ার।
এসিড সার্ভাইভারস ফাউন্ডেশনের সুপারিশে ২০ জন এসিড ভিকটিমকে সম্পূর্ন বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে আইসিটি ক্যারিয়ার।

Share This Post