শেখ হাসিনার নির্দেশে এখন জনগণের পাশে থাকাই আওয়ামী লীগের রাজনীতি : ড. হাছান মাহমুদ

শেখ হাসিনার নির্দেশে এখন জনগণের পাশে থাকাই আওয়ামী লীগের রাজনীতি : ড. হাছান মাহমুদ

‘অন্য কোনো রাজনীতি নয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এখন জনগণের পাশে থাকাই আওয়ামী লীগের রাজনীতি’ বলেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর মিরপুরে মাজার রোডের টালি কমিউনিটি সেন্টারে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের দারুস সালাম থানার আয়োজনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে খাদ্য ও বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব গতকাল (বুধবার) অনলাইনে উঁকি দিয়ে টিভির পর্দায় যেভাবে করোনা নিয়ে কথা বললেন, তাতে মনে হলো, তিনি করোনা বিশেষজ্ঞ। তিনি ঢাকা কলেজে পড়াতেন জানতাম। কিন্তু তিনি মনে হচ্ছে ১৪ মাসের মধ্যে এফআরসিএস পাশ করে ফেলেছেন, করোনা মহামারিতে বিশেষজ্ঞ হয়ে গেছেন, সেটি আমরা বুঝতে পারিনি।’

‘মির্জা ফখরুল সাহেব বলেছেন, সরকার না কি বাংলাদেশে করোনার শুরুতে বুঝতে পারেনি, অথচ, বাংলাদেশে করোনা মহামারির শুরু থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্ব ও সময়োচিত পদক্ষেপের কারণে মহামারির গত ১৪ মাসে কেউ অনাহারে মৃত্যুবরণ করেনি, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে করোনা মোকাবিলায় দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশ শীর্ষ ও করোনাপীড়িত গতবছরে ধ্বনাত্মক জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনকারী বিশ্বের মাত্র ২০ টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ তৃতীয় স্থানের অধিকারী’ জানান ড. হাছান।

তবুও দুর্মুখদের মুখ থেমে নেই উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে বিএনপি ও তাদের মিত্ররা টিভির পর্দায় আর অনলাইনে উঁকি দিয়ে প্রতিদিন সরকারের সমালোচনাই করছে।’

অপরদিকে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মহামারিতে জনগণের পাশে থাকাই আওয়ামী লীগের রাজনীতি এবং দেশব্যাপী দলের নেতা-কর্মীরা জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে, বলেন ড. হাছান।

মন্ত্রী এসময় করোনায় আক্রান্ত বিএনপিনেত্রী খালেদা জিয়ার আরোগ্য কামনা করে বলেন, ‘আমরা মহান স্রষ্টার কাছে প্রার্থনা করি, তিনি দ্রুত সুস্থ হোন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার শারিরীক অবস্থা ও মানবিক বিবেচনায় আদালতে তার জামিন না হওয়া সংবিধানে প্রদত্ত প্রশাসনিক ক্ষমতা বলে তাকে মুক্তি দিয়ে সেটি দুই দফা বর্ধিত করেছেন, তার সুবিধা অনুযায়ী তিনি চিকিৎসা গ্রহণ করছেন।’

‘কিন্তু বিএনপি নেতাদের কথাবার্তায় মনে হয়, দেশের সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য নিয়ে তাদের কোনো উদ্বেগ নাই, তাদের মাথাব্যথা শুধু বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে’ উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘একটি রাজনৈতিক দলের রাজনীতি যদি শুধু তাদের নেত্রীর স্বাস্থ্য নিয়েই আবর্তিত হয়, তাহলে সেটি জনগণের রাজনৈতিক দল নয়।’

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের দারুস সালাম থানার সভাপতি এ বি এম মাজহারুল আনামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন দলের মহানগর উত্তরের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি । দলের দারুস সালাম থানা শাখার নেতা মো: গিয়াসউদ্দিনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রায় এক হাজার করোনাপীড়িত পরিবারের হাতে খাদ্য ও বস্ত্রের প্যাকেট তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

Share This Post